‘বাবা, আমি সানি লিয়ন হতে চাই’

নিউজ ইভেন্ট ২৪ ডটকম/আর

০৮ জুন ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ২৩:৫৪

বাবা আমি সানি লিয়ন হতে চাই। তুমি যদি একজন সরকারি চাকুরে হতে পার, তাহলে আমি কেন সানি লিয়ন হতে পারব না? একজন বাবা ও মেয়ের মধ্যে এরকম কথোপকথন কি হতে পারে? কোনও মেয়ে তার বাবার কাছে কি বলতে পারেন যে, তিনি একজন পর্নোস্টার হতে চান?

সমাজ বাস্তবতায় সেটা সম্ভব না হলেও এমনটাই হয়েছে! তবে বাস্তবে নয়। রিল লাইফে। কয়েকদিন আগে মুক্তি পেয়েছে বলিউডের প্রখ্যাত নির্মাতা রামগোপাল বর্মা পরিচালিত ভারতীয় স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি ‘মেরি বেটি সানি লিয়ন বননা চাহতি হ্যায়’। ছবির বিষয়, বাব-মা’র সঙ্গে মেয়ের কথোকথন।

প্রায় সাড়ে এগারো মিনিটের ছবিতে দেখা যায় মকরান্দ দেশপাণ্ডে, দিব্যা জগদালে ও নয়না গঙ্গোপাধ্যায়কে। মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নয়না। সানি লিয়নের মতো একজন পর্নস্টার হতে চান, এই ইচ্ছের কথা জানাতে বাবা-মার কাছে যান তাদের মেয়ে। মেয়ের কথায় আকাশ থেকে পড়েন মা-বাবা। সানি লিয়ন কেন, অন্য পেশা কেন নয়? সানিকে তো এসমাজের কেউ ভালো চোখে দেখে না, শারীরিক খিদে মেটানোর জন্য তাকে ব্যবহার করা হয়, সমাজে সানির পেশার কোনও সম্মান নেই। এরকম একাধিক যুক্তি দিয়ে মেয়েকে বোঝানোর চেষ্টা করেন বাবা-মা।

কিন্তু, বোঝার পাত্রী নন মেয়ে। তিনিও পাল্টা যুক্তি দেন। বলেন, পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থা মেয়েদের পতিব্রতা নারী হওয়ার শিক্ষা দেয়। পুরুষ নিজের স্বার্থে নারীকে ব্যবহার করে। মেয়েদের কাছে যৌনতা শক্তি ও সম্পদ, সেকারণে তিনি যৌনতা বিক্রি করে ফায়দা লুটতে চান। মেয়েকে কোনওভাবেই ভাবনা থেকে সরাতে পারেননি ওই দম্পত্তি। বরং, ছবির শেষে মেয়েটি তার মাকে বলেন, তোমাকে আমি যা বলছি সেটা একটুও বুঝতে পারলে নিজে উপলব্ধি করতে পারবে যে, আমি সানি লিয়ন হতে চেয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

পাঁচদিন হলো ইউটিউবে নির্মাতার নিজস্ব চ্যানেলে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। এখন পর্যন্ত সেখানে ছবিটি দেখেছেন প্রায় ৩৬ লাখ মানুষ। তবে ছবির কনটেন্টের জন্য সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে পরিচালক রামগোপাল বর্মাকে। ছবিটিকে ভয়ঙ্করও বলেছেন কেউ কেউ।

 

 


প্রতিদিনের খবরগুলো ফেসবুকে পেতে নিচের লাইক অপশনে ক্লিক করুন-

Logo

সম্পাদক: পল্লব মুনতাকা। জ্যাকম্যান, মেডওয়ে, ইউএসএ
ইমেইল: mail.newsevent24@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | newsevent24 2017